একগুচ্ছ দাবি সামনে রেখে উত্তর দিনাজপুর জেলার কালিয়াগঞ্জের রাস্তায় আগুন জ্বালিয়ে পথ অবরোধ করে বিক্ষোভে সামিল হল স্বনির্ভর গোষ্ঠীর মহিলারা।

0
110

রেখা রায়,উত্তর দিনাজপুর, ২১জানুয়ারী; চুপচাপে সিকেলশন নয়, সংঘের ইলেকশন চাই সমেত একগুচ্ছ দাবি সামনে রেখে উত্তর দিনাজপুর জেলার কালিয়াগঞ্জের রাস্তায় আগুন জ্বালিয়ে পথ অবরোধ করে বিক্ষোভে সামিল হল স্বনির্ভর গোষ্ঠীর মহিলারা। বৃহস্পতিবার দুপুর ২ টা নাগাদ কালিয়াগঞ্জ শহরের বিবেকানন্দ মোড়ে বালুরঘাট রাজ্য সড়ক অবরোধ করে টায়ার জ্বালিয়ে শুরু হয় মহিলাদের বিক্ষোভ। অরাজনৈতিক ব্যানারে বঞ্চিত স্বনির্ভর গোষ্ঠী মহিলাদের এই আন্দোলনের পেছনে ছিল বিজেপি যুব মোর্চার নেতা গৌরাঙ্গ দাস। কালিয়াগঞ্জ গ্রামীণ অবহেলিত মহিলা স্বনির্ভর গোষ্ঠীর ব্যানারে এই আন্দোলনে স্তব্ধ হয়ে যায় শহর। বিধানসভা ভোটের আগে বঞ্চনা ও দূর্নীতি ইস্যুতে মহিলা স্বনির্ভর দলের এই আন্দোলন অন্যমাত্রা পেয়েছে কালিয়াগঞ্জে।
এদিন দুপুরে হাসপাতাল ময়দানে জমায়েত শেষে স্বনির্ভর গোষ্ঠীর শতশত মহিলাদের নিয়ে বিরাট মিছিল কালিয়াগঞ্জ শহরের বিবেকানন্দ মোড়ে পৌঁছে পথ অবরোধ শুরু করে। এই অবরোধের ঝাঁঝ বাড়াতে রাস্তার মাঝে টায়ার জ্বালানো হয়। এই পথ অবরোধ শুরু হতেই ঘটনাস্থলে পৌঁছায় কালিয়াগঞ্জ থানার বিরাট পুলিশ বাহিনী। কালিয়াগঞ্জ বিডিও’র তরফে প্রতিনিধি এসে আলোচনার মাধ্যমে অবরোধ তোলার চেষ্টা করলেও সফলতা মেলেনি। আন্দোলনকারী মহিলাদের দাবি জেলা প্রশাসনের প্রতিনিধিকে আসতে হবে তাদের কথা শুনতে। এই প্রথম নয়, কালিয়াগঞ্জের বিভিন্ন প্রান্তের স্বনির্ভর গোষ্ঠীর মহিলাদের একাংশ গত দুবছর ধরে বঞ্চনার প্রতিবাদে আন্দোলন করে আসছে।
এর আগে একাধিকবার কালিয়াগঞ্জ বিডিও অফিসে ঘেরাও বিক্ষোভ করেছে এই মহিলারা। এদিন কালিয়াগঞ্জ শহরে বালুরঘাট রাজ্য সড়ক অবরোধ করে স্তব্ধ করে দেয় যান চলাচল। এদিন পথ অবরোধে সামিল মহিলাদের তরফে উষা বর্মন বলেন আমাদের দাবি অতি সত্বর প্রতিটি সংঘের ভোট করাতে হবে। চুপেচাপে সিলেকশন না করে সংঘের ইলেকশন করতে হবে। সিএসপিরা দলগুলোর কাছ থেকে দল গঠন ও লোন করতে টাকা নিচ্ছে কেন? এই প্রথা বন্ধ করতে হবে। স্কুল ড্রেসের কাজগুলি স্বনির্ভর দলগুলিকেই দিতে হবে। কোন ঠিকাদার সংস্থাকে দেওয়া চলবে না। পৌর এলাকার স্কুল ড্রেস নিয়ে মহাসংঘ কাটমানি খেয়ে ঠিকাদারকে দিল কেন? জবাব চাই।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here