জেলার নদী গুলো জলে প্লাবিত হয়ে জলমগ্ন বিভিন্ন এলাকা।

0
60

নিজস্ব সংবাদদাতা, বালুরঘাট, ২৮সেপ্টেম্বর; জেলার নদী গুলো জলে প্লাবিত হয়ে জলমগ্ন বিভিন্ন এলাকায়।জল বেড়েছে টাঙ্গন, আত্রাই এবং পুনর্ভবা নদীতে। পুনর্ভবা নদীর তীরে গঙ্গারামপুর পৌরসভার ৫, ৮, ৯ এবং ১৪  নম্বর ওয়ার্ডের বিভিন্ন এলাকা ইতিমধ্যে জলমগ্ন হয়ে পড়েছে। পৌরসভার বহু পাকা বাড়ির মধ্যে জল ঢুকে গেছে। পুনর্ভবা নদীর বাঁধ পঞ্চবটী এলাকাতে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। সেখানে সেচ দপ্তর বস্তা ফেলে বাঁধ রক্ষার চেষ্টা করছে। তবে বৃষ্টি বন্ধ হলেও জল যে ভাবে বাড়ছে তাতে গঙ্গারামপুরের আরো বহু এলাকা জলমগ্ন হওয়ার আশঙ্কা থেকেই যাচ্ছে। জানাগেছে, পুনর্ভবা নদীতে ইংরেজের আমলে তৈরী যে ছয়টি সুইস গেট আছে সেই গেট গুলির অবস্থা খারাপ থাকায় সেই জায়গা দিয়ে নদীর জল ঢুকছে। স্থানীয় লোকেদের দাবী অবিলম্বে বাঁধ মেরামতি এবং সুইস গেট মেরামতি না করা হলে বন্যার জল ঢুকে পড়বে। ইতিমধ্যে পৌরসভার পক্ষ থেকে ত্রিপল সহ ত্রাণ সামগ্রী বিলি করা হয়েছে।

প্রাক্তন পৌরপ্রধান অমল সরকার জানিয়েছেন, সেচ দপ্তরকে আরো বেশী করে লক্ষ্য রাখতে হবে বাঁধ মেরামতি ক্ষেত্রে। তা না হলে গঙ্গারামপুরে বিরাট এলাকা জলমগ্ন হওয়ার আশঙ্কা থাকছে। জেলা প্রশাসনের পক্ষথেকে বন্যা দুর্গত মানুষ দের অন্যত্র সরিয়ে নিয়ে যাওয়ার কাজ শুরু হয়েছে।  স্থানীয় দুট  স্কুলে ত্রাণ শিবির খোলা হয়েছে। প্রয়োজনে আরো ত্রাণ শিবির খোলা হবে বলে জানা গিয়েছে।

অন্যদিকে আত্রাই নদীর জলে প্লাবিত দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার বালুরঘাট ব্লকের চকভৃগু, বেলাইন, আখিরা পাড়া প্রভৃতি এলাকায় বন্যা পরিস্থিতি খতিয়ে দেখলে জেলা পুলিশ সুপার। সোমবার জেলা পুলিশের উদ্যোগে এই সমস্ত বন্যা কবলিত এলাকা পরিদর্শন করেন মালদা রেঞ্জের ডিআইজি প্রসূন ব্যানার্জি নিজেও। জেলা পুলিশ সুপার দেবর্ষি দত্তের সঙ্গে এদিন বন্যা কবলিত এলাকা ঘুরে দেখেন ডিএসপি সদর ধীমান মিত্র। বন্যা দুর্গত মানুষদের হাতে ত্রাণ সামগ্রী তুলে দেয় দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার পুলিশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here