তৃণমূল নেতার বাড়িতে চুরি,১০ঘন্টার মধ্যে অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করলো পুলিশ।

0
143

বাবাই সূত্রধর,গঙ্গারামপুর,দক্ষিণ দিনাজপুর,৭অক্টোবর;জেলা  তৃণমূল কংগ্রেসের জেলা সাধারণ সম্পাদকের বাড়িতে রহস্য জনক ভাবে চুরির ঘটনায় ১০ঘন্টার মধ্যেই অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করলো পুলিশ।ঘটনাটি  ঘটেছে দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার গঙ্গারামপুর থানার কালদীঘি এলাকায়।জেলা  তৃণমূলে নেতার বাড়িতে চুরির ঘটনার সিসিটিভি ফুটেজ দেখেই পুলিশের পাশাপাশি এলাকাবাসীরা খোজ খবর শুরু করে এবং এলাকারই একটি জমি থেকে তাকে উদ্ধার করে পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়।এদিনের এই ঘটনায় চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে,পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করা করেছে ।
                    গঙ্গারামপুর থানার কালদিঘী এলাকার বাসিন্দা সমাজসেবী  আনন্দ দাস এলাকার মানুষ জনের কাছে   জনদরদী নেতা হিসাবে পরিচিত।মানুষ জনের পাশে থেকে কাজ করে যান সারা বছর ধরেই।জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের তরুণ সভাপতি গৌতম দাস তার জেলা কমিটির মধ্যে সমাজসেবী তৃণমূল নেতা আনন্দ দাস কে মানুষজনের পাশে থেকে আরো বেশি করে কাজ করার জন্য জেলা কমিটিতে সাধারণ সম্পাদকের পদে বসান।তিনি দায়িত্বের সঙ্গে সেই পদে কাজও শুরু করে দেন।
আনন্দ বাবুর পরিবার সূত্রের খবর, মঙ্গলবার রাত্রে পরিবারের সদস্যরা সকলেই ঘুমিয়ে থাকার পর হঠাৎ করে তারা বেশ কিছু আওয়াজের শব্দ পান।রাত্রেই বাড়িতে লাগানো সিসিটিভি ফুটেজ দেখে বুঝতে পারেন চোর ঢুকেছে, একটি মোবাইল  সহ নগদ ৫০হাজার টাকা খোয়া গেছে।সকাল হতেই নেতার বাড়ির সামনে তার অনুগামীদের ব্যাপক ভির জমে যায়,সেখানে ছুটে আছে গঙ্গারামপুর থানার পুলিশও।
এবিষয়ে ওই তৃণমূল নেতার ভাই তুষার দাস জানিয়েছেন,চুরি করতে এসে একটি মোবাইল সহ নগদ ৫০হাজার টাকা চুরি করে নিয়ে গেছে।গ্রামবাসীদের সহযোগিতায় পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করেছে।এলাকায় যেন এমন ঘটনা আর না ঘটে সে দিকে  পুলিশ প্রশাসন ব্যবস্থা নিলে ভালো হয়।
এই ঘটনার পর খবর পেতেই ওই নেতার অনুগামীরা ব্যাপক পরিমাণে ভীর করে নেতার বাড়ির সামনে ।
এবিষয়ে এক এলাকাবাসি বিজয় রায় জানিয়েছেন,আমরা জানতে পেরেছি দাদার বাড়িতে চুরি হয়েছে,একটি মোবাইল সহ ৫০হাজার টাকা নিয়ে ওই চোর এলাকারই একটি জমিতে লুকিয়ে ছিলেন পরে গ্রামবাসীরা তাকে ধরে পুলিশের হাতে তুলে দেন।
গঙ্গারামপুর থানার আইসি পূর্ণেন্দু কুমার কুন্ডু জানিয়েছেন,একজন কে গ্রেপ্তার করা হয়েছে ,পুরো ঘটনার তদন্ত শুরু করা হয়েছে।

এমন ঘটনায় শোরগোল পড়েছে এলাকা জুড়ে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here