পিস্তল দেখিয়ে ভয় দেখানো!ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে থানায় লিখিত অভিযোগ গঙ্গারামপুর থানায়।

0
37

বাবাই সূত্রধর,গঙ্গারামপুর,দক্ষিণ দিনাজপুর,৮জানুয়ারি; গাড়ির ঘটনাকে কেন্দ্র করে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছাড়ালো শহর এলাকায়।অভিযোগ, দুষ্কৃতিকারীরা পিস্তল নিয়ে গিয়ে ভয় দেখানোর পাশাপাশি মহিলাদের শ্রীলতাহানি করে, টাকা ছিনতাই করে পালিয়ে যায় অভিযুক্তরা বলে অভিযোগ উঠেছে।দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার গঙ্গারামপুর পৌরসভার ১০নম্বর ওয়ার্ডের শান্তি কলোনি এলাকায় ঘটনাটি ঘটেছে। এলাকারি দুই জনের নামে থানায় লিখিত অভিযোগ জানানো হয়েছে।অভিযুক্তদের খোঁজ পাওয়া যায়নি,পুরো ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।
দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার গঙ্গারামপুর পৌরসভার ১০নম্বর ওয়ার্ডে শান্তি কলোনি এলাকায় গাড়ির ঘটনাকে কেন্দ্র করে বচসা শুরু হয় ওই এলাকারই দুই বাসিন্দার সঙ্গে।
অভিযোগ,বৃহস্পতিবার রাত্রে সুমন সাহা নামে ওই এলাকারই এক যুবক শীর্ষেন্দু হাটির গাড়িতে চোট লাগিয়ে দেয়।ঘটনায় কিছুটা উত্তেজিত সৃষ্ঠি হয়,পরে সুমনকে বাড়ি পৌঁছে দেওয়া হয় এলাকাবাসীরা।অভিযোগ শুক্রবার সকালে সুমন ও বিপ্লব মাহাতো (ওরফে ভুতা)শীর্ষেন্দুর দাদা নির্মলেন্দু হাটি গেঞ্জি তৈরির কারখানায় গিয়ে পিস্তল দেখিয়ে ভয় দেখায় তাদের ও মহিলাদের শ্রীলতাহানি করে পাশাপাশি পিস্তলের বাট দিয়ে আঘাত করে কারখানার শ্রমিক উত্তম কংসমনিকে বলে তাদের অভিযোগ।এছাড়াও তারা অভিযোগ করেন, গেঞ্জি তৈরির কারখানা থেকে নগদ টাকা ছিনতাই করে নিয়ে গিয়েছে।ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে গঙ্গারামপুর থানায় লিখিত অভিযোগ জানানো হয়েছে।

এবিষয়ে নির্মলেন্দু হাটি ও উত্তম কংসমনি অভিযোগ করে জানিয়েছেন,গতকাল গাড়ি নিয়ে একটা ঝামেলা হয়েছিল।কিন্তু শুক্রবার সকালে গেঞ্জি তৈরির কারখানায় সুমন ও বিপ্লব পিস্তল নিয়ে গিয়ে ভয় দেখান,মহিলাদের শ্রীলতাহানি করার পাশাপাশি কারখানা থেকে নগদ টাকা ছিনতাই করে পালিয়ে যায়।

যদিও অভিযুক্তদের খোঁজ পাওয়া যায়নি,পুরো ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here