পুলিশের হাত থেকে মেয়েকে ছিনিয়ে নেওয়া অভিযোগ উঠল মেয়ের পরিবারের লোকজনের বিরুদ্ধে।

0
39

রেখা রায়,উত্তর দিনাজপুর,৯মার্চ; পুলিশের হাত থেকে মেয়েকে ছিনিয়ে নেওয়া অভিযোগ উঠল মেয়ের পরিবারের লোকজনের বিরুদ্ধে। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে ইসলামপুর কোর্ট চত্বর রণক্ষেত্র রূপ নিল। এ ঘটনায় বেশ কয়েক জন পুলিশ কর্মী ও মেয়ের পরিবারের লোকজন আহত হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। ঘটনাকে নিয়ে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে নিখোঁজ এক কলেজ পড়ুয়াকে উদ্ধার করল ইসলামপুর থানার পুলিশ। সরস্বতী পূজার পরের দিন ব্যাংক থেকে বাড়ি ফেরার পথে সে নিখোঁজ হয়ে যায়। পরবর্তীতে সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ইসলামপুর ব্লক এর পন্ডিতপোতা গ্রাম পঞ্চায়েতের সমসের গাঁও এলাকার প্রিয়াঙ্কা সিনহা নামের ওই কলেজ পড়ুয়াকে বিভিন্ন জায়গায় খোঁজ করেও তাকে না পেয়ে অবশেষে ইসলামপুর থানায় নিখোঁজের মামলা দায়ের করেন পরিবারের লোকজন। এরপর পুলিশ অভিযান চালিয়ে সোমবার রাতে ওই পড়ুয়াকে উদ্ধার করে।নিখোঁজ পড়ুয়ার পিসি গীতা সিনহা জানান, তার ভাইঝির অন্যত্র বিয়ে ঠিক হয়েছিল। কিন্তু জোর করে ভাইঝির ইচ্ছের বিরুদ্ধে ওই এলাকারই শুভ সিংহ নামে এক যুবক তাকে অপহরণ করে নিয়ে যায় ।অবিলম্বে তাকে বাড়িতে ফিরিয়ে দেওয়ার ব্যবস্থা করা হোক বলে দাবি তুলেছেন তিনি। এদিকে মঙ্গলবার ওই পড়ুয়াকে ইসলামপুর কোর্টে পাঠানো হলে তার পরিবারের লোকজন চরমভাবে বিশৃংখলার সৃষ্টি করে বলে অভিযোগ। আর সেখানে বেশ কয়েকজন জখমও হন। যদিও ইসলামপুর পুলিশ জেলার পুলিশ সুপার শচীন মক্কার জানিয়েছেন, ওই যুবতীকে উদ্ধার করে ইসলামপুর কোর্টে পাঠানো হয়েছে। পরে কোর্ট থেকে মেয়েকে পুলিশ ইসলামপুর থানা নিয়ে আসার সময় মেয়ের পরিবারের লোকজন রা পুলিশের হাত থেকে জোর করে মেয়েকে ছিনিয়ে নেবার চেষ্টা চালিয়েছে সে সময় মেয়েকে যখন পরিবারের লোকজন নিয়ে যাচ্ছিল পুলিশকর্মীরা তাদেরকে ধাওয়া দিয়ে মেয়েকে আটক করে। এ ঘটনাকে নিয়ে মেয়ে পরিবারের লোকজন সঙ্গে পুলিশের ধস্তাধস্তি ও মারপিট হয় পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার জন্য লাঠিচার্জ করে তারপরে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here