বড়বিল্লা গ্রামে মহামুদ আলম নামে এক ব্যাক্তির কাছ থেকে ৩৯৬ গ্রাম সোনার বিস্কুট উদ্ধার করল পুলিশ।

0
91

রেখা রায়,উত্তর দিনাজপুর,২৩ডিসেম্বর; উত্তর দিনাজপুর জেলার গোয়ালপোখর থানার বড়বিল্লা গ্রামে মহামুদ আলম নামে এক ব্যাক্তির কাছ থেকে ৩৯৬ গ্রাম সোনার বিস্কুট উদ্ধার করল পুলিশ। পুলিশ মেহমুদকে গ্রেপ্তার করেছে। বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে একটি মোটরবাইক। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ১৪ জনের পুলিশী হেফাজতের আবেদন জানিয়ে ধৃতকে আজ ইসলামপুর আদালতে পেশ করল গোয়ালপোখর থানার পুলিশ। ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে।

গতকাল রাতে গোপন সূত্রে খবর পেয়ে গোয়ালপোখর থানার বড়বিল্লা গ্রামের ষ্টেট ব্যাঙ্কের সামনে এক ব্যাক্তিকে মোটরবাইক নিয়ে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখেন। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে কথায় অসংলগ্ন থাকায় তাকে তল্লাশী চালায় পুলিশ। প্যান্টের পকেট থেকে তিনটি সোনার বিস্কুট সহ বেশ কিছু সোনা উদ্ধার হয়। সোনা পাচারের অভিযোগে পুলিশ মহামুদ আলমকে গ্রেপ্তার করে। পুলিশের জেরায় মহামুদ আলম জানায়, তার বাড়ি গোয়ালপোখর থানার সাহাপুর(২) এলাকায়। বাংলাদেশ থেকে চোরাপথে সোনাগুলি ভারতে আসে। সেই সোনাগুলো ইসলামপুর এবং কিষানগঞ্জে দিতে যাচ্ছিলেন। পুলিশের জেরায় মেহমুদ আরও জানায়, দীর্ঘদিন যাবৎ এই সোনা পাচারে যুক্ত আছেন। বাংলাদেশ থেকে সোনা এনে ইসলামপুর এবং কিষানগঞ্জে পাচার করছেন। পুলিশী হেফাজতে নিয়ে পুলিশ জানতে চায় এই পাচারচক্রে কারা কারা যুক্ত। ইসলামপুর পুলিশ জেলার পুলিশ সুপার শচীন মক্কার জানিয়েছেন, ধৃতকে জিজ্ঞাসাবাদ করে বহু নতুন তথ্য পুলিশের হাতে এসেছে। আরও তথ্য জানতে ধৃতকে পুলিশী হেফাজতে নেবার জন্য আদালতের কাছে আবেদন জানিয়েছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here