মিত্র শব্দের উপর বিশ্বাস ও আস্তা রেখে ক্লাব প্রতিষ্ঠিত করে এবছরে প্রথম শ্যামা পূজোয় ব্রত হলেন মিত্র সংঘ।

0
40

বাবাই সূত্রধর,গঙ্গারামপুর,দক্ষিণ দিনাজপুর,১২নভেম্বর; মিত্র শব্দের উপর বিশ্বাস ও আস্তা রেখে ক্লাব প্রতিষ্ঠিত করে এবছরে প্রথম শ্যামা পূজোয় ব্রত হলেন মিত্র সংঘ।করোনা অতিমারির সমস্ত বিধি নিষেধ মেনেই দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার গঙ্গারামপুর বড়ো বাজার এলাকায় অবস্থিত মিত্র সংঘ প্রথম শ্যামা পুজো করতে চলেছেন।শহরেরই কারিগর ও শিল্পীদের প্রাধান্য দিয়ে পূজো মণ্ডপ ও প্রতিমা গড়ে ভক্তি- শ্রদ্ধা সহ শ্যামা পূজো করবেন বলে জানিয়েছেন ক্লাবের কর্ণধার বাবু চৌধুরী। মিত্র সংঘের প্রথম শ্যামা পুজোকে কেন্দ্র করে উন্মাদ স্থানীয় লোকজনেরা।
শ্যামা পূজো মানেই রং বেরংয়ের আলোর ছটা চারিদিক।প্রদীপ ও মোমবাতি আলোয় চারিদিক ঝিকমিক।আকাশে যেন আতশবাজির খেলা,আনন্দের দিন বলে পরিচিত শ্যামা পুজো।কিন্তু সবই যেন এবছরে একটু মুখ ফিরিয়ে নিয়েছে করোনা আতঙ্কে।রাজ্য সরকারের তরফে একাধিক সতর্কবার্তা দেওয়া হয়েছে,উচ্চ আদালতের তরফে বাজি ফাটানো নিষেধ করেছেন বর্তমান পরিস্থিতির উপর নির্ভর করে।সব জেলাতেই বিগ বাজেটের পুজো না করে কোনরকমে শ্যামা পুজো করা হচ্ছে।দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার গঙ্গারামপুর এর বড়ো বাজারে অবস্থিত মিত্র সংঘের পরিচালনায় এবছরে প্রথম শ্যামা পুজো করতে চলেছে।শহরেরই মৃৎ শিল্প দিয়ে শ্যামা মায়ের প্রতিমা তৈরি ,স্থানীয় কারিগর দিয়ে প্যান্ডেল তৈরি করে মানুষের মধ্যে শ্যামা পুজোর আনন্দ দেবার চেষ্টা করবেন মিত্র সংঘের পদাধিকারী রা।উচ্চ আদালত ও সরকারের নির্দেশকে মান্যতা দিয়ে সমস্ত বিধি নিষেধ মেনে তাদের শ্যামা পুজো করবেন বলে জানিয়েছেন মিত্র সংঘের কর্মকর্তা বাবু চৌধুরী।মিত্র সংঘের শ্যামা পুজো উদ্বোধনের দিন সেখানে তৃণমূলের প্রাত্তন জেলা বিপ্লব মিত্র , গঙ্গারামপুর পৌরসভার প্রাত্তন চেয়ারম্যান প্রশান্ত মিত্র সহ বিশিষ্ট জনের উপস্থিত থাকবেন বলে জানা গিয়েছে।

এবিষয়ে মিত্র সংঘের সম্পাদক বাবু চৌধুরী জানিয়েছেন,মিত্র সংঘের শ্যামা পুজো এবছরে প্রথম করতে চলেছি ।সরকারি সমস্ত বিধি নিষেধ মেনেই আমরা পুজো করবো।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here