৫ মাস আগে হারিয়ে যাওয়া একটি দামি মোবাইল ফোন পুলিশের উদ্যোগে পুনরায় ফিরে পেল এক মোবাইল গ্রাহক।

    0
    124

    বাবাই সূত্রধর, গঙ্গারামপুর, ৩০ শে ডিসেম্বর দক্ষিণ দিনাজপুর;প্রায় ৫ মাস আগে হারিয়ে যাওয়া একটি দামি মোবাইল ফোন পুলিশের উদ্যোগে পুনরায় ফিরে পেল এক মোবাইল গ্রাহক। ঘটনাটি ঘটেছিল দক্ষিণ দিনাজপুরের গঙ্গারামপুর থানার ঠেঙ্গাপাড়া এলাকায় সঞ্জয় অধিকারী নামে গঙ্গারামপুর থানার এলাকার বাসিন্দা পেশায় শিক্ষক ৫ মাস আগে তার মোবাইল খোয়া যাওয়ার বিষয়ে থানায় লিখিত অভিযোগ জানিয়ে ছিলেন। থানা পুলিশের সহযোগিতায় কলকাতা সাইবার ক্রাইম পুলিশ প্রশাসনের মাধ্যমে মোবাইল ফিরে পাওয়ার পরে ওই শিক্ষক সাধুবাদ জানিয়েছেন পুলিশ আধিকারিকদের। সেইসঙ্গে পুলিশের এমন কাজকে শহরবাসী ধন্যবাদ জানিয়েছেন।
    পুলিশ সূত্রে খবর, আজ থেকে প্রায় ৫ মাস আগে ঠেঙ্গাপাড়া তে ওই শিক্ষক নেতা তার স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মী স্ত্রীকে নিয়ে তার শ্বশুর বাড়িতে গিয়েছিলেন সেখানেই তার কোম্পানিি মোবাইল ফোনটি খোয়া যায় বলে তিনি সেদিনই থানায় অভিযোগ জানান।এর পরেই গঙ্গারামপুর থানার পুলিশ ঐ শিক্ষকের সমস্ত কাগজপত্র নিয়ে রাজ্য গোয়েন্দা বিভাগের সাথে কথাবার্তা বলে।এরপরে কয়েক মাস কেটে যাওয়ার পরে পুলিশি তদন্তে উঠে আসে কোথায় রয়েছে সেই মোবাইল ফোনটি। গঙ্গারামপুর থানার আইসির নির্দেশ পেতেই থানার বড়বাবু সমীর মন্ডল, থানার টাউন অফিসার শুভঙ্কর চক্রবর্তী মহিলা পুলিশ অফিসার পাপড়ি সাহারা তদন্তে নেমে ওই খোয়া যাওয়া মোবাইল ফোনটি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।বুধবার ঠেঙ্গাপাড়া এলাকার বাসিন্দা শিক্ষক সঞ্জয় অধিকারীকে ডেকে নিয়ে এসে সমস্ত কাগজপত্র দেখে থানার বড়বাবু সমীর মন্ডল,টাউন অফিসার শুভঙ্কর চক্রবর্তী,মহিলা পুলিশ অফিসার পাপড়ি সাহার উপস্থিতিতে তার হাতে খোয়া যাওয়া মোবাইল ফোনটি তুলে দেওয়া হয়।

    এ বিষয়ে মোবাইল ফোন ফিরে পাবার পরে শিক্ষক সঞ্জয় অধিকারী জানিয়েছেন, ভাবতেই পারেনি মোবাইল ফোনটি ফিরে পাবো। ধন্যবাদ জানাই পুলিশকর্মীদের।
    জেলা পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে যে,পুলিশ প্রশাসন সব সময় মানুষজনদের জন্য কাজ করে যাচ্ছে আর আগামী দিনেও করে যাবে। এতদিন পরেও যে খোয়া যাওয়া মোবাইল উদ্ধার হয় এমন ঘটনা শোনার পরে গঙ্গারামপুর থানা পুলিশ প্রশাসন ও রাজ্য পুলিশ প্রশাসনের এমন কাজে ধন্যবাদ জানিয়েছেন গঙ্গারামপুর বাসিও।

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here