কালিয়াগঞ্জে তৃণমূল পৌর কর্মচারী ফেডারেশনের সাংগঠনিক সন্মেলন।

0
185

রেখা রায়,উত্তর দিনাজপুর,১৬ জানুয়ারী; কালিয়াগঞ্জ সমেত পশ্চিমবাংলার উন্নয়নের স্বার্থে একুশে ফের মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার চাই। শনিবার উত্তর দিনাজপুর জেলার কালিয়াগঞ্জে তৃণমূল পৌর কর্মচারী ফেডারেশনের সাংগঠনিক সন্মেলনে এই দাবি উঠলো। এদিন দুপুরে কালিয়াগঞ্জ পৌরসভার সভাগৃহে শুরু হয় তৃনমূল পৌর কর্মচারী ফেডারেশনের সাংগঠনিক সন্মেলন। তৃনমূল পৌর কর্মচারী সংগঠনের এই সন্মেলনে প্রধান বক্তা ছিলেন কালিয়াগঞ্জের বিধায়ক তপন দেবসিংহ। ছিলেন প্রশাসক মন্ডলীর সদস্য বসন্ত রায়, কমল ঘোষ, ঈশ্বর রজক, রাজীব সাহা, প্রাক্তন কাউন্সিলার অমিত দেবগুপ্ত। তৃণমূল পৌর কর্মচারী ফেডারেশনের রাজ্য সম্পাদক তথা কালিয়াগঞ্জ শাখার মহাসচিব তপন কুন্ডু, দুই সহ সভাপতি বিমল পোদ্দার ও বিলাস সরকার প্রমুখ।
স্হায়ী, অস্হায়ী মিলিয়ে কালিয়াগঞ্জ পুরসভার শতাধিক পৌর কর্মচারীদের নিয়ে এদিনের সাংগঠনিক সন্মেলনে সাংগঠনিক আলোচনা পর্বে অংশ নিয়ে নিজেদের সমস্যার কথা তুলে ধরেন অনেক পুরকর্মী। এদিন কালিয়াগঞ্জ তৃণমূল পৌর কর্মচারী ফেডারেশনের সাংগঠনিক সন্মেলনে বক্তব্য রাখতে গিয়ে বিধায়ক তপন দেবসিংহ বলেন গত ৪ বছরে এই শহরের উন্নয়নে যে কাজ হয়েছে। তার সম্পূর্ণ কৃতিত্ব বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ে। এর আগে কালিয়াগঞ্জ শহরে দীর্ঘ সময় ছিল কংগ্রেসের পৌর বোর্ড। কিন্তু সে ভাবে উন্নয়নের কাজ হয়নি। ২০১৬ সালে কালিয়াগঞ্জ পুরসভা পরিচালনার ক্ষমতায় তৃনমূল আসার পরে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সৌজন্যে উন্নয়নের জোয়ার এসেছে। পার্ক, বাসস্ট্যান্ড, মার্কেট কমপ্লেক্স, রাস্তার মানোন্নয়ন, আলোকসজ্জা , নিকাশী, শহরী আবাস যোজনার কাজ চলছে জোরকদমে। অনেক কাজ শেষ হয়েছে। বাকি কাজ দ্রুত শেষ করা হবে। পৌরসভার স্হায়ী, অস্হায়ী কর্মচারীদের বেশ কিছু পেশাগত দাবি আছে। একুশে দিদির সরকার ফের ক্ষমতায় এলে আপনাদের দাবিগুলো পুরনে উপযুক্ত পদক্ষেপ নেওয়া হবে বলে আশ্বাস বিধায়কের। এদিন তৃণমূলে কালিয়াগঞ্জ পৌর কর্মচারী ফেডারেশনের মহাসচিব তপন কুন্ডু বলেন এই শহরের সার্বিক উন্নয়নে পুরসভার স্হায়ী, অস্হায়ী কর্মীদের বিরাট ভূমিকা রয়েছে। বেতন বৃদ্ধি সহ কর্মীদের পেশাগত নানা দাবি রয়েছে। এদিন আমরা সেই দাবি সামনে রেখে সাংগঠনিক সন্মেলন করলাম। আমাদের প্রিয় বিধায়ক তপন দেবসিংহ ও পুর প্রশাসক মন্ডলী সবকিছু জানলেন। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে বাংলায় তৃতীয়বার মা-মাটি-মানুষের সরকার প্রতিষ্ঠা করার শপথ নিয়ে এদিন সন্মেলনের কাজ সমাপ্ত করা হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here